Blog

Pinterest ব্যবহার করে ব্যবসায় করতে জেনে নিন ৫টি Pinterest marketing strategy!

Pinterest marketing strategy

আপনি যদি ভেবে থাকেন যে ফেসবুক এবং টুইটার ব্যবহারই যথেষ্ট এবং এখানেই Social media marketing tools এর সীমা, তাহলে আরেকবার ভাবুন! Pinterest marketing strategy সম্পর্কে জানুন ধারনা বদলে যাবে!

আপনার ব্যবসার জন্যে আপনার নতুন বেস্ট ফ্রেন্ড Pinterest কে স্বাগত জানান। Pinterest pins একটি টুইট এর থেকে অনেক তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পরে।

এমনকি ফেসবুকের পোস্টকেও এখন চাড়িয়ে যাচ্ছে।

যেহেতু সাম্প্রতিক ফেসবুক এবং পিন্টারেস্ট, ইন্সটাগ্রাম পারচেস করেছে তাই বলতে গেলে এরা এখন Business marketing এ হট টিকেট এর মতো।

যখন Pinterest সত্যিকারে পরিচিত এর Go-to site এর জন্যে, তখন সেখানে আপনি রেসিপি, হোম ডেকর আইডিয়া ছাড়াও আর বেশি কিছু পেয়ে যাবেন।

এমনকি, Pinterest এ আপনি পাবেন Visual search engine, একগাদা ছবি, গ্রাফিক্স, লিঙ্কস এবং তার সাথে Inspiration ও পেয়ে যাবেন যা আপনি খুজচ্ছেন।

এর মানে হচ্ছে এটি Social media platform এ আপনার ব্যবসার জন্যে Goldmine হিসেবে কাজ করবে।

প্রকৃতপক্ষে, প্রায় ৫৫% মানুষ এই প্লাটফর্ম থেকে নতুন কোন প্রোডাক্ট এর ছবি খুঁজে থাকে।

আর ওয়েবসাইট এর ক্ষেত্রে ট্রাফিক ড্রাইভিং এর জন্যে খুব শক্তিশালী একটা প্লাটফর্ম এটা।     

Pinterest marketing strategy তৈরির মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনি আপনার ব্যবসাকে এই প্লাটফর্মে সঠিক পথ দিয়েছেন।

তাই আজ আপনাদের Pinterest marketing strategy তৈরির জন্যে এমন ৫টি ধাপ নিয়ে আলোচনা করব।

যা আপনাদের এই প্লাটফর্মে সহজেই উপরে উঠতে সাহায্য করবে।

1. আপনার প্রোফাইল ব্র্যান্ড করুনঃ

Social media network এ আপনার উপস্থিতি জানান দেয়ার জন্যে আপনার সর্বপ্রথম স্টেপ হবে আপনার প্রোফাইলকে ব্র্যান্ড করা।

আপনাকে প্রথমেই নিশ্চিত করতে হবে যে আপনি একটি Business Pinterest account খুলেছেন যাতে আপনি Rich pins এবং আরো অনেক কিছুর Analytics ব্যবহার করতে পারেন।

এরপর আপনাকে আপনার Pinterest profile কে নিয়ে ব্র্যান্ডিং করতে হবে যাতে খুব সহজেই বোঝা যায় এটি আপনার কোম্পানির প্রোফাইল।

প্রত্যেক সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মের নিজস্ব আলাদা Customization features আছে যা আপনাকে আপনার মতো করে সাজাতে অনুমতি দেয়।

চলুন দেখে নেই কিভাবে আপনি আপনার নিজস্ব Pinterest একাউন্ট তৈরি করবেন-

Cover board বেঁছে নিন-

Pinterest, ইউজারদের একটা Cover board বেঁছে নেয়ার সুযোগ দেয় যেখানে সেই বোর্ড থেকে  আপনি টপ প্রোফাইলের pins দেখতে পাবেন।

Individual pins এ, ক্লিক করে যাওয়া যায় না, কিন্তু সেখানে লিঙ্ক থাকে বোর্ড এর Cover ডিজাইনের কর্ণারে, যা দ্বারা আপনি সেই পিন গুলো দেখতে পারবেন।

Cover board হচ্ছে পারফেক্ট জায়গা যেখানে আপনি ব্র্যান্ডের সব কিছু এড করতে পারবেন।

যাতে থাকবে ব্লগ পোস্ট, গ্রাফিক্স, প্রোডাক্ট Shots এবং অন্যান্য ডিজাইন যা আপনার কোম্পানির।

নিশ্চিত করুন যে এগুলো আপনার ব্র্যান্ডের সাথে ম্যাচ হচ্ছে যাতে আপনার প্রোফাইল একটি Branded look পায়।

যেমন বলতে গেলে, যদি আপনার কভার বোর্ডের এ একই কালার এর Scheme থাকে তাহলে এটি আপনার প্রোফাইলকে আরো বেশি Cohesive appearance দিবে। 

আপনার উচিৎ অন্তত একটা Pinterest board রাখা যা আপনার ওয়েবসাইট অথবা ব্যবসার এক্সক্লুসিভ কন্টেন্টগুলোকে ফোকাস করবে।

৫টির উপরে showcase boards সিলেক্ট করুন-

আপনার প্রোফাইলের পরবর্তী পার্ট হচ্ছে আপনি আপনার Showcase boards কে কাস্টমাইজ করতে পারবেন।

আর এটি আপনার নাম এবং bio এর নিচে সরাসরি দেখা যাবে।

আপনি ৫টার বেশি Boards পছন্দ করে নিতে পারেন যা Showcase হিসেবে আপনার প্রোফাইলের টপে থাকবে।

সেগুলো আপনি স্লাইডের মতো করে এক বোর্ড থেকে আরেক বোর্ড যেতে পারবেন।

এটা সবচেয়ে ভালো জায়গা আপনার প্রোডাক্ট, সার্ভিস এবং ব্লগ বোর্ডের বৈশিষ্ট্য বজায় রাখার।

প্রোফাইল  ফটো  আপলোড  করুন-

এখন আপনি অবশ্যই চাবেন একটি প্রোফাইল ফটো আপলোড করতে যা আপনার ব্যবসাকে রিপ্রেসেন্ট করবে।

এটা হতে পারে আপনার লগো যা ১৬৫ x ১৬৫ Square pixel image এর হতে হবে।

আপনি যদি আপনার বিজনেস এর ফেস হয়ে থাকেন, তাহলে এটা একটি তীরের মাথা হিসেবে কায করবে আপনার প্রোফেশন এর জন্যে।

আপনার Bio লিখুন-

আপনার Social media bios অবশ্যই সব প্লাটফর্মে একই রকম হওয়া উচিত।

সবগুলোতেই মোটামুটি একটা Character limit (Pinterest’s এ ১৬০) রয়েছে। তাই সহজ ভাবে লিখুন এবং তা বোর্ডে রাখুন।

অনেক ধরনের পথ আছে যা অবলমম্বন করে আপনি আপনার Social media bio লিখতে পারেন।

আপনার Pinterest bio লিখার নিয়মটাও অনেকটা একই তাই আপনি আপনার ইন্সটাগ্রাম অথবা টুইটার এর Bio এর সাথে মিল রেখেও লিখতে পারেন।

আর এখানে আপনার  Pinterest bio এর জন্যে Hashtags কোনো জরুরী বিষয় নয়।  

আপনার বোর্ড কভার এর ব্র্যান্ডিং করুন-

আপনি নিজে একটি নির্দিষ্ট কভার পছন্দ করে নিতে পারবেন আপনার বোর্ডের জন্যে।

যার মানে হচ্ছে আপনি আপনার ব্র্যন্ডের সাথে মিল রেখে এবং আপনার পিন্টারেস্ট প্রোফাইলের সাথে মিল রেখে কভার ব্যবহার করতে পারবেন।.

এখানে কয়েকটি ভিন্ন পথ রয়েছে এই কাজটি করার জন্যে।

প্রথমে আপনি ভিন্ন ভিন্ন বোর্ডের জন্যে কভার তৈরি করতে পারবেন এবং তা আপলোড করতে পারবেন।

এবং তা আপনার ওয়েবসাইটের সাথে লিঙ্কআপ করাতে পারবেন। Sprout অনেকটা এভাবেই কাজ করে থাকে।

তাছাড়া আপনি সাধারণত একটা পিনও বেঁছে নিতে পারেন আপনার বোর্ডের জন্যে যা আপনার ব্র্যান্ডের সাথে মিলে।

আপনার ওয়েবসাইট Verify করুন-

শেষ ধাপ কিন্তু এখানেই শেষ না, আপনাকে আপনার ওয়েবসাইট ভেরিফাই করতে হবে।

এর ফলে আপনি পিন্টারেস্ট এ আপনার ওয়েবসাইটের Analytics ব্যবহার করতে পারবেন এবং rich pins এর feature চালাতে পারবেন যা আপনার লিঙ্ক সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য শেয়ার করবে।

তা হতে পারে কোনো আর্টিকেল, কোন প্রোডাক্ট, কোন রেসিপি এবং আরো অনেক কিছু।

আপনার ওয়েবসাইট ভেরিফাই করার জন্যে পিন্টারেস্ট আপনাকে একটি Code snippet দিয়ে থাকে যা আপনাকে আপনার সাইটে স্থানান্তরিত করতে হবে।  

2. আপনার কন্টেন্ট স্ট্রাটেজি নির্ধারণ করুনঃ

কোন ধরনের কন্টেন্ট আপনি Pinterest এ শেয়ার করবেন জানেন কি?

এখানে অনেক ধরনের কন্টেন্ট আছে যা এই প্লাটফর্ম এ ভালোই কাজ করে। উদ্বাহরণস্বরুপ প্রোডাক্ট পিন্স, ইনফোগ্রাফিক অথবা ব্লগ পোস্ট। চলুন দেখে নেই কিছু জনপ্রিয় পিন এর নমুনা-

Product pins-

যদি আপনার ব্যবসা Retailer অথবা একটি অনলাইন স্টোর হয়, তাহলে আপনি অবশ্যই Stunning product এর ছবি তুলুন এবং pins এ পরিবর্তন করুন।

মানুষ এই প্লাটফর্ম এ নতুন নতুন প্রোডাক্ট খুঁজতে পছন্দ করে, সেগুলো হতে পারে বাড়ি সাজানোর জিনিস, কাপড়-চোপড়, পরিবারের জন্যে গিফট এবং আরো অনেক কিছু।

Pinterest প্রধানত শপিং এর জন্যে একটি Discovery engine হিসেবে কাজ করে, ৭২% Pinners এটা বলে যে তারা যখন কোন প্রোডাক্ট দেখতে আসে তখন তারা অন্য আরো প্রোডাক্ট

পছন্দ করে ফেলে যা তারা কিনার চিন্তা করে নি। প্রোডাক্ট এর সুন্দর সুন্দর ছবি অডিয়্যান্স এর মনযোগ আকর্ষণ করার জন্যে যথেষ্ট।  

ব্লগ পোস্ট Graphics-

ব্লগ পোস্ট গ্রাফিক্স হচ্ছে অন্যতম একটি Pin যা আপনার সাইটে পাবলিশ করা আর্টিকেলকে প্রমোট করতে সাহায্য করে।

আর তাই আপনার উচিৎ এটা নিশ্চিত করা যে এগুলো মানসম্মত ডিজাইনের Vertical graphics।

আর এতে নজর কাড়া ছবি অথবা গ্রাফিক ডিজাইন থাকা দরকার এবং তার সাথে সাথে বল্ড টেক্সট করা। যাতে পিনাররা সহজেই পড়তে পারে যখন তারা স্ক্রল করে তাদের নিউজ ফিড গুলো।

Infographic pins-

আপনার ব্যবসা প্রোমট করার অন্যতম পথ হচ্ছে ইনফগ্রাফিক্স এর মাধ্যমে মূল্যবান তথ্য শেয়ার করা।

বেশিরভাগ ইনফোগ্রাফিক্স ভার্টিকাল এবং Longform এর হয়ে থাকে By nature। আর পিন্টারেস্ট প্লাটফর্ম এ প্রোমট এর জন্যে এটি অনেক সুবিধাজনক।  

লিড ম্যাগনেট-

সুন্দর সুন্দর Vertical graphics তৈরি করার মাধ্যমে লিড ম্যাগনেট প্রোমট করা হচ্ছে Pinterest এর জন্যে অন্যতম একটি Solid content strategy।

নিশ্চিত করুন যে আপনার লিড ম্যাগনেট এর ডিজাইন গুলো যেন বেশ আকর্ষণীয় হয় এবং ইউজারদের যেন বাধ্য করে এই পিন গুলো সেভ অথবা ডাউনলোড করে রাখার জন্যে।

3. কমিউনিটি বোর্ডের সাথে সংযুক্ত হোনঃ

অন্যতম কার্যকর Pinterest marketing strategy হচ্ছে জয়েন করা এবং কমউনিটি তৈরি করা অথবা Group boards তৈরি করা যাতে আপনার কন্টেন্টগুলো সহজেই পৌঁছায় সবার কাছে।

Pinterest তাদের ইউজারদের অনুমতি দেয় মানুষকে ইনভাইট করার, যাতে তারা আপনার বোর্ড এ কন্ট্রিবিউট করতে পারে।

আর এটা হচ্ছে একটি চমৎকার রাস্তা আপনার কন্টেন্টকে Brand new audiences এর কাছে পৌছানোর।

গুরুত্বপূর্ণ Pinners খুঁজুন আপনার Niche অনুযায়ী এবং চেক করে দেখুন যে তাদের কোনো Group বোর্ডস আছে কিনা যা আপনার ইন্ডাস্ট্রির সাথে মিলে।

অনেক ইউজাররাই তাদের বোর্ড ডিস্ক্রিপশন এ কিছু নিয়ম দিয়ে থাকে অথবা লিঙ্ক প্রোভাইড করে। তাই আপনাকে ভালো করে দেখতে হবে যে আপনাকে কি করতে হবে।

সাধারণত এসব বোর্ডে যোগ দেয়ার জন্যে আপনাকে মালিকের বরাবর একটা ইমেইল করতে হতে পারে অথবা কোনো কন্টাক্ট ফর্ম পূরণ করতে হতে পারে। 

একবার আপনি জয়েন করতে পারলে চেষ্টা করবেন বেশি এক্টিভ থাকার এবং আপনার কন্টেন্ট গুলো pinning করার।

কিন্তু অন্যদের গুলোও পিন করতে হবে যাতে এটা না মনে হয় যে আপনি শুধু আপনার ব্যবসাকে প্রোমোট করছেন।

4. Pinterest SEO এর উপর ফোকাস করুনঃ

এটি মূলত একটি Visual search engine, যার মানে এর নিজস্ব অ্যালগরিদম রয়েছে এবং এর নিজস্ব Search engine optimization এর নিয়মও রয়েছে।

আপনাকে অবশ্যই আপনার Pinterest SEO এর উপর ফোকাস করতে হবে এবং আপনার নিজস্ব প্রোফাইলে এই নিয়ম গুলো বাস্তবায়ন করতে হবে যাতে আপনার র‍্যাঙ্কিং উপরের দিকে যায়।   

Pinterest marketing strategy এর জন্যে এমন তিনটি ভিন্ন জায়গা আছে যেখানে আপনার Keyword usage এর উপর ফোকাস করা উচিৎ।

আপনার profile

আপনি আপনার নাম এবং Bio উভয়ে আপনার কী-ওয়ার্ড এড করতে পারেন, যাতে করে মানুষ শুধু মাত্র সেই কী-ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করলেও আপনার নাম দেখা যায়।  

আপনার Pinterest name লেখার জন্যে আপনি ৬৫টি Characters এবং আপনার Bio এর জন্যে ১৬০টি Characters পাবেন।

আর আমি বলব আপনি যথাসম্ভব পুরোটাই আপনার রিলিভেন্ট কি-ওয়ার্ড দ্বারা পূরণ করার চেষ্টা করবেন।  

আপনার pins

অবশ্যই আপনার পিন এর টাইটেল এবং বর্ণনায় Relevant keywords ব্যবহার করতে ভুলে যাবেন না।

আর এর মানে এই না যে আপনি আপনার ডেস্ক্রিপশন এ এক টন কী-ওয়ার্ড দিয়ে রাখবেন। অবশ্যই এটা নেচারাল দেখাবেনা।

তাই চেষ্টা করবেন সুন্দর একটি বর্ণনা দেওয়ার সাথে আপনার রিলিভেন্ট কী-ওয়ার্ড গুলো ব্যবহার করার। 

প্রকৃতপক্ষে আপনি অবশ্যই চাবেন যে আপনার পিন এর টাইটেল আপনার মেইন কী-ওয়ার্ড এর উপর ফোকাস করে হোক।

তাই আপনি সেই শব্দগুলো আপনি আপনার বর্ণনায় এড করতে পারেন এবং তার সাথে কিছু সেকেন্ডারি কী ব্যবহার করতে পারেন।

এতে ইউজাররা এবং Pinterest algorithm দ্রুত বুঝে যাবে এটা কি বিষয় নিয়ে। এর ফলে আপনার পিন সার্চ রেসাল্টেও দেখা যাবে এবং রিলেটেড পিন গুলোও শো করবে।

আপনার বোর্ড

ফাইনালি আপনি অবশ্যই চাবেন যে আপনার আপনার পিন বোর্ডের টাইটেল কিউট এবং মজাদার হওয়ার সাথে সাথে যেনো কাঙ্ক্ষিত কী-ওয়ার্ডকেও ফোকাস করে।

যদিও আপনি চাবেন আপনার বোর্ড এর টাইটেল একটু আকর্ষণীয় এবং মজাদার হোক, কিন্তু মনে রাখবেন SEO টাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ এখানে।

পিন করার পরিবর্তে আপনার বোর্ড টাইটেল এর জন্যে “Pinterest Strategies” এর সাথে লেগে থাকুন।

আপনাকে অবশ্যই আপনার বোর্ড ডিস্ক্রিপশন লেখতে হবে যাতে মানুষ বোঝে যে তারা এখানে কি কি পাবে।

আর এই সুযোগে আপনি আপনার প্রাইমারি এবং সেকেন্ডারি কী-ওয়ার্ড অন্তর্ভুক্ত করুন।

5. ফ্রেশ পিন এর জন্যে সিডিউল করুনঃ

Pinterest marketing strategy এর ৫টি ধাপের সর্বশেষ ধাপ হচ্ছে ক্রমাগত আপনার ফ্রেশ কন্টেন্ট গুলো শেয়ার করুন পিন্টারেস্টে।

আর এইভাবে আপনি আপনার প্রোফাইলের কোয়ালিটি ইম্প্রুভ করতে পারবেন এবং এর সাথে সাথে এটাও বলব যে পিন্টারেস্ট স্মভাব্য আপনার কন্টেন্ট গুলো সার্চ রেসাল্ট এও শো করে থাকে।

আপনি যখন pinterest এ কাজ করবেন তখন প্রতিদিন আপনাকে নতুন নতুন কন্টেন্ট শেয়ার করতে হবে। আর কার এতো টাইম আছে এসব করার?

Sprout ব্যবহার করুন আপনার সোশ্যাল Pinterest management tools হিসেবে, যা আপনার কন্টেন্ট এর জন্যে সিডিউল তৈরি করতে সাহায্য করবে এবং মাল্টিপল সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার কন্টেন্ট পৌছাতে সাহায্য করে।

এমনকি আপনি আপনার ডুপ্লিকেট ইন্সট্রাগ্রাম এর কন্টেন্টকেও পিন্টারেস্ট এ দিতে পারেন যাতে আপনার কন্টেন্ট এর রিচ আরো বাড়ে।

Sprout এর Social account এ পাবলিশিং ট্যাব আপনাকে ভিন্ন বোর্ড অনুযায়ী আপনার পিন সিডিউল করার অনুমতি দেয়।

সিমপলভাবে আপনার ইমেইজ আপলোড করুন লিঙ্ক এড করুন এবং বর্ণণা দিন ও সবশেষে সিডিউল করুন।

এছাড়াও Hootsuite আপনাকে আপনার সময় বাঁচাতে অনেকাংশে সাহায্য করবে।

যেমন বলতে গেলে কম্পোজ করা, পিন পাবলিশ করা , নতুন বোর্ড তৈরি করা, একাধিক বোর্ডে একবারে পিন করা এবং তারসাথে আপনার সব Social media profiles একসাথে চালাতে পারবেন।  

কেনো Pinterest marketing strategy প্রয়োজন?

যেসব কারনে আমরা এতোটা জোর দিচ্ছি Pinterest marketing strategy এর উপর, তার কিছু কারন বলছি আপনাদেরঃ

  • Pinterest হচ্ছে এখনকার চতুর্থ জনপ্রিয় Social media platform, United States এর অনুযায়ী।
  • Pinterest এর রয়েছে শক্তিশালী গ্লোবাল ফুটপ্রিন্ট।
  • আগের থেকে অনেক বেশি মানুষ এখন পিন্টারেস্ট ব্যবহার করছে।
  • মানুষ কেনাকাটার জন্যেও পিন্টারেস্ট ব্যবহার করছে।
  • Pinterest মানুষকে ইন্সপায়ার করছে অনেক বেশি। 

পরিশেষে এটাই বলব, Pinterest খুবই শক্তিশালী একটি মার্কেটিং টুল যার মাধ্যমে আপনারা Organically ব্র্যান্ড এর সচেতনতা বাড়াতে পারবেন, সেল বাড়াতে পারবেন, বুস্ট কনভার্সন করতে পারবেন এবং তার সাথে সাথে আপনার টার্গেট অডিয়ান্সদের সাথে লং লাস্টিং রিলেশন তৈরি করতে পারবেন। আর এই সব কিছুই আপনার কোম্পানির জন্যে অতীব জরুরী। তাই আর বেশি না ভেবে Pinterest marketing এর দিকে এগিয়ে যান এবং আপনার ব্যবসাকে সমৃদ্ধ।